কাশ্মীর ভ্রমণে বৃত্ত

কাশ্মীর ভ্রমণে বৃত্ত
এটি Britto Travel & Tourism (বৃত্ত) এর একটি বৈদেশিক ইভেন্ট।

কাশ্মীর নিয়ে খুব বেশি বলার প্রয়োজন নেই, কাশ্মীরকে বলাই হয় ভূ-স্বর্গ । শ্রীনগর, পেহেলগাম, গুলমার্গ, সোনমার্গ, আরু ভ্যালী, বেতাব ভ্যালী প্রতিটি জায়গা যেন তার অপরুপ সৌন্দর্য্যের পসরা সাজিয়ে বসে আছে।

✔ কাশ্মীর নিয়ে আমাদের প্লানঃ
যাত্রার তারিখঃ ১০ই এপ্রিল,
ফেরার তারিখঃ ১৮ই এপ্রিল,
খরচঃ ৪৪৯৯৯/- টাকা।
(এই বাজেট শুধু ফেব্রুয়ারি মাসে ট্যুর কনফার্ম করার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে পরবর্তীতে এয়ার ফেয়ার বৃদ্ধি পেলে অতিরিক্ত যতটুকু বৃদ্ধি পাবে সেটা যোগ হবে)

✔ কনফার্ম করবেন যেভাবেঃ

ট্যুর কনফার্মেশন করার জন্য আপনাকে ২০০০০ টাকা জমা দিয়ে ট্যুর কনফার্ম করতে হবে (অফেরতযোগ্য), এক্ষেত্রে বিকাশ/ব্যাংক/ অফিসে এসে সরাসরি জমা দিতে পারবেন। বিকাশ 01911-254397 পার্সোনাল। অথবা আমাদের অফিসে এসেও টাকা জমা দিতে পারেন। অথবা ব্যাংকেও পাঠাতে পারেন।

✔ কনফার্ম করার ডেডলাইনঃ কনফার্ম করার শেষ তারিখ ২৫শে ফেব্রুয়ারী, তবে যতদ্রুত কনফার্ম করা যাবে ততই ভালো।

আমরা যাবো ১০ই এপ্রিল রাতের বাসে কলকাতার উদ্দ্যেশ্যে :) (কেউ চাইলে এয়ারেও কলকাতা যেতে পারেন)

ফিরবো: ১৮ই এপ্রিল সকালে রওয়ানা হবো রাত আনুমানিক দশটায় ঢাকা এসে নামবো :) (কেউ চাইলে এয়ারেও কলকাতা যেতে পারেন)

আমাদের প্যাকেজে যা যা অন্তর্ভুক্তঃ
১। ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা এসি হুন্দাই বাসের টিকেট,
২। কলকাতা শ্রীনগর-কলকাতা এয়ার টিকেট (এয়ার ফেয়ার ১২৫০০ রুপি, এর বেশী হলে এড করতে হবে),
৩। প্রতিদিন মূল ৩ বেলা খাবার খরচ,
৪। শ্রীনগর ৩ রাত, হাউজবোট ১ রাত, আরু ভ্যালী ১ রাত থাকার খরচ (২/৩ জন শেয়ার ব্যাসীস),
৫। সকল লোকাল ট্রান্সপোর্ট খরচ,
৬। কলকাতা ২ রাত থাকার খরচ (ট্যুরিষ্ট স্ট্যান্ডার্ড হোটেল),
৭। শিকারা রাইড খরচ,
৮। সকল ধরনের ট্যাক্সেস,
৯। শ্রীনগর সিটি ট্যুরের সকল এন্ট্রি ফি,
১০। ইউনিয়ন গাড়ি খরচ,
১১। গাইড সার্ভিস।

প্যাকেজ এ যা যা অন্তর্ভুক্ত নয়ঃ
১। বাসের মধ্যবিরতিতে কোন খাবার খরচ,
২। ব্যাক্তিগত কোন খরচ (মোবাইল বিল, মিনারেল ওয়াটার, লন্ড্রি বিল, রুম হিটারসহ বাড়তি কোন খরচ),
৩। কোন ধরনের রাইড খরচ ( গনডোলা রাইড, পনি রাইড/হর্স রাইড ইত্যাদি),
৪। শীতের কাপড় বুট ভাড়া নেওয়ার কোন খরচ,
৫। কলকাতায় কোন ধরনের খাবার খরচ,
৬। প্যাকেজে উল্লেখ নেই এমন কোন খরচ।

ট্যুর প্ল্যানঃ

দিন ০০ (১০ই এপ্রিল)
রাত ৯টার বাসে কলকাতার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। আশা করছি সকালে বর্ডারে পৌছে যাবো।

দিন ০১ (১১ই এপ্রিল)
সকালে বর্ডারে পৌছেই সকল ফর্মালিটিজ শেষ করে কলকাতার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু হবে। সকালের নাস্তা হোটেলে সেরে নিবো। কলকাতা পৌছাতে প্রায় দুপুর হয়ে যাবে। হোটেলে চেকইন হয়ে ফ্রেশ হয়ে দুপুরের লাঞ্চ করবো। বিকেলে আশেপাশে কিছুটা ঘুরাঘুরি করে খুব দ্রুত ঘুমিয়ে পড়বো কারণ খুব ভোরেই আমাদের শ্রীনগরের উদ্দেশ্যে ফ্লাইট।

দিন ০২ (১২ই এপ্রিল)
ভোরের ফ্লাইটে আমরা শ্রীনগরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবো। আশা করছি দুপুর ২টার মধ্যে পৌছে যাবো। আমাদের জন্য গাড়ি এয়ারপোর্ট এ অপেক্ষা করবে। গাড়িতে করে পেহেলগামের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। বিকেল নাগাদ অরু ভ্যালী পৌছে যাবো। অরু ভ্যালীতে হোটেলে চেকইন করে ফ্রেশ হয়ে আশেপাশে কিছুটা সময় কাটাবো। রাতে অরু ভ্যালী নাইট স্টে।

দিন ০৩ (১৩ই এপ্রিল)
সকালে ব্রেকফাষ্ট করে চন্দনবাড়ী ও বেতাব ভ্যালীর উদ্দেশ্যে বেড়িয়ে পরবো। চন্দন বাড়ী ও বেতাব ভ্যালী দেখে ফিরে এসে লাঞ্চ করে নিবো। লাঞ্চ শেষে কেউ চাইলে নিজ খরচে পনি (হর্স) রাইড করে মিনি সুইজারল্যান্ডখ্যাত জায়গাটি ঘুরে দেখতে পারেন। পনি রাইড করতে মিনিমাম ৪ঘন্টার মত সময় লাগবে। সবশেষ করে আমরা চলে যাবো ডাল লেক। হাউজবোট এ চেকইন করে ফ্রেশ হয়ে বিকেলে শিকারা (বোট) রাইড করবো। রাতে হাউজবোটে নাইট স্টে।

নোটঃ শিকারা রাইড গ্রুপের পক্ষ থেকে থাকবে। যদি কোন কারণে বিকেলে শিকারা রাইড না করতে পারি তাহলে পরের দিন সকালে শিকারা রাইড করবো।

দিন ০৪ (১৪ই এপ্রিল)
সকালে ব্রেকফাষ্ট করে হাউজবোট থেকে চেকআউট হয়ে শ্রীনগর সিটি ট্যুরে বেড়িয়ে পরবো। একে একে ঘুরে দেখবোঃ Parimahal, Chasma Shahi, Tulip Garden, Shalimar Garden, Hazratbal Mosque etc। বিকেলে শ্রীনগর হোটেলে চেকইন করবো। ফ্রেশ হয়ে আশেপাশে ঘুরাঘুরি করবো। নাইট স্টে শ্রীনগর।

দিন ০৫ (১৫ই এপ্রিল)
সকালের ব্রেকফাষ্ট শেষে গুলমার্গ এর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবো। Tanmarg To Gulmarg এর রাস্তা অসাধারণ যা আপনাকে বিমোহিত করবে। গুলমার্গ আপনি চাইলে নিজ খরচে গনডোলা (কেবল কার) রাইড করতে পারেন। গুলমার্গ এ ঘুরাঘুরি শেষে বিকেলের মধ্যে শ্রীনগর হোটেলে ব্যাক করবো।

দিন ০৬ (১৬ই এপ্রিল)
সকালের ব্রেকফাষ্ট শেষে সোনমার্গ এর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। পথে আমরা সুন্দর স্পটগুলোতে ব্রেক নিবো। সোনমার্গ গিয়ে কেউ চাইলে নিজ খরচে হর্স রাইড করতে পারবেন। সোনমার্গ ঘুরে আমরা সবাই শ্রীনগর ফিরে আসবো। রাতে শ্রীনগর থাকবো।
নোটঃ সোনমার্গ আমরা প্যাকেট লাঞ্চ নিয়ে যাবো।

দিন ০৭ (১৭ই এপ্রিল)
সকালে নাস্তা সেরে দুপুর ১২টার মধ্যে হোটেল চেকআউট করবো। তারপর যার যার ফ্লাইট অনুসারে এয়ারপোর্ট চলে যাবো। আশা করছি রাত ১০টার মধ্যে কলকাতায় পৌছে যাবো। কলকাতা হোটেলে রাত্রিযাপন।

শেষ দিন (১৮ই এপ্রিল)
সকাল ৭টার গাড়িতে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। পথিমধ্যে ব্রেকফাষ্ট করে নিবো।। সন্ধ্যা ৮টার মধ্যে ঢাকায় থাকবো ইনশা আল্লাহ।

✔ভিসা : যাদের ভারতীয় ভিসা আছে পোর্ট যেদিক দিয়েই হোক সবাই আমাদের সাথে যোগ দিতে পারবেন। যাদের ভিসা নেই তারা ভিসা করে নিতে পারেন, এ ব্যাপারে আমরা সর্বোচ্চ হেল্প করবো।

✔আসন সংখ্যা :
সর্বোচ্চ ২৬জন নিতে পারবো আমরা তাই দ্রুত কনফার্ম করুন।

এই ট্রিপ এ সবাই যেতে পারবেন (ছেলে/মেয়ে/ ফ্যামিলি/কাপল)।

বুকিং সিরিয়াল অনুসারে বাস, লোকাল ট্রান্সপোর্ট ও হোটেল রুম সাজানো হবে। এই ক্ষেত্রে কোন ধরনের উজর আপত্তি চলবেনা।

(বিঃ দ্রঃ এডভান্স এর টাকা দিয়ে আপনার সিট কনফার্ম হবার পর, আপনি যদি কোন কারণে না যেতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনার রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে অন্য কেউ কনফার্ম করলে অবশ্যই আপনার টাকা ফেরত দেওয়া হবে। অন্যথায় এডভান্স এর টাকা অফেরতযোগ্য।)


ভারতীয় ভিসা করার জন্য যেসকল কাগজপত্র লাগবেঃ
১। মিনিমাম ৬ মাস মেয়াদি পাসপোর্ট,
২। বর্তমান বাসার বিদ্যুৎ/গ্যাস/পানি/টেলিফোন বিলের কপি,
৩। ব্যাংক স্টেটমেন্ট (মিনিমাম ২০০০০ টাকা থাকতে হবে)। ব্যাংক একাউন্ট না থাকলে ডলার এন্ড্রোসমেন্ট (১৫০ ডলার),
৪। চাকুরীজিবীদের ক্ষেত্রে NOC, ব্যাবসায়ীদের ক্ষেত্রে ট্রেড লাইসেন্স, স্টুডেন্টদের ক্ষেত্রে স্টুডেন্ট আইডি কার্ড, সরকারি কর্মকর্তার ক্ষেত্রে GO,
৫। জাতীয় পরিচয়পত্র কিংবা জন্মনিবন্ধনের কপি,
৬। দুই কপি ২/২ সাইজ রঙ্গিন ছবি,
৭। পুরাতন পাসপোর্ট থাকলে সেটাও সাথে জমা দিতে হবে,
৮। ভিসার আবেদন ফর্ম।

এই ট্যুরের স্পেশাল কথা :

-কলকাতা টু ঢাকা আমাদের প্যাকেজে বাস আছে কিন্তু কেউ চাইলে এয়ারে করে পরদিন মানে ১০ই এপ্রিল তারিখ সরাসরি কলকাতা গিয়ে আমাদের সাথে যোগ দিতে পারেন :)
-প্রচুর বরফ পাবো আশা করি ওখানেই সবাই শীতের কাপড় ও জুতা ভাড়া পাবেন
-টিউলিপ পাবো বলে আশা করি :)

আমাদের সাথে ট্যুর করার কিছু নিয়ম যা্ আপনি মেনেই আমাদের সাথে এসেছেন বলে আমরা ধরে নিবো :)

১। কাশ্মির ট্যুর সবার জন্য একটি ড্রিম ট্যুর। আমরা সবসময় চেষ্টা করি প্রতিটি ট্যুরকেই সুন্দর ও আনন্দদায়ক করার। যেহেতু ট্যুরটি প্রায় ৭রাত ৭দিনের সেক্ষেত্রে সবাইকে সহযোগীতা করতে হবে। ট্যুর চলাকালীন যেকোন পরিবেশ পরিস্থিতিতে সবাইকে মানিয়ে চলার মনমানসিকতা থাকতে হবে।
২। আপনাকে অবশ্যই সামাজিক বন্ধুত্বপুর্ন হতে হবে কারণ বন্ধুত্বপুর্ন মনোভাবই পারে একটি ট্যুরকে প্রাণবন্ত করে তুলতে।
৩। ট্যুরে প্রাকৃতিক দূর্যোগ, গোলযোগ, রাস্তায় জ্যাম এসব কারণে কোন সমস্যা হলে সবাইকে মানিয়ে নেওয়ার মনমানসিকতা রাখতে হবে। মনে রাখবেন সবার সহযোগীতায় একটি সুন্দর ট্যুর হয়।
৪। হঠাত করে যেকোন বিপদ এসে হাজির হওয়া যেমন রাস্তায় ধর্মঘট হরতাল, এক্সিডেন্ট বা যেকোন কারণেই হোক খরচ উল্লেখযোগ্য হারে বেড়ে গেলে সবাই মিলে তা বহন করতে হবে।
৫। বর্ডারগুলোতে অতিরিক্ত সময় লেগে গেলে প্ল্যান এ কিছুটা চেঞ্জ হতে পারে সেটা পজিটিভভাবেই দেখতে হবে। মনে রাখবেন আপনাকে বেষ্ট একটা ট্যুর উপহার দেওয়ার লক্ষ্যেই আমাদের ট্যুর প্ল্যান সাজানো সুতরাং যদি কোন পরিবর্তন কিংবা পরিমার্জন করতে হয় সেক্ষেত্রে সবার সহযোগীতা একান্ত কাম্য।
৬। কোন কারণে সবাই মিলে প্ল্যানের বাহিরে ঘুরতে গেলে সেই খরচ সবাই মিলে বহন করতে হবে।
৭। আমাদের গাড়িগুলো প্রতিটা স্পটের নির্দিষ্ট জায়গা পর্যন্ত নিয়ে যাবে তারপর যেকোন রাইড নিজ খরচে করতে হবে যেমনঃ গনডোলা রাইড, পনি/হর্স রাইড। মোট কথা গাড়ি যে পর্যন্ত যাবে সেটার সকল খরচ আমরাই বহন করবো।

আশা করছি আমাদের প্ল্যানটি আপনাদের কাছে পুরোপুরি ক্লিয়ার তারপরেও কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের সরাসরি ফোন করে জেনে নিবেন।

যে বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবেঃ

১। স্থানীয়দের সাথে কোনভাবেই তর্কে যাওয়া যাবে না।
২। ভ্রমণের সময় কোন ধরণের মাদকদ্রব্য বহন করা যাবে না।
৩। মজা আমরা অবশ্যই করব তবে সেটা যেন সীমা অতিক্রম না করে। কোন ধরনের অশ্লীলতা বরদাস্ত করা হবে না।
৪। দলগত ভাবে ঘুরে বেড়াবো।
৫। হোটেলে শেয়ার বেসিস সবাইকে মিলেমিশে থাকতে হবে। মেয়েদের জন্য আলাদা রুমের ব্যবস্থা থাকবে। (প্রতিরুমে ২/৩জন)
৬। খাবারের মান যতটা ভাল করা যায় চেষ্টা করা হবে।
৭। পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে যেকোন সিদ্ধান্ত সবার সাথে আলোচনা সাপেক্ষে নেওয়া হবে এবং সেক্ষেত্রে এডমিনের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হিসেবে গন্য হবে।
৮। যত্রতত্র ময়লা না ফেলে একটা নির্দিস্ট স্থানে ফেলব।
৯। অতিরিক্ত জ্যাম কিংবা হঠাৎ বাসে কোন সমস্যায় বর্ডারে পৌছাতে দেরী হলে অধৈর্য্য হওয়া যাবেনা।
১০। সর্বোপরি সবার সহযোগিতা ও আন্তরিকতায় একটি ট্যুর সুন্দর ও সাফল্যমন্ডিত করা সম্ভব। আশা করি সবাই সহযোগিতা করবেন।
১১। যেহেতু গ্রুপ ট্যুর সেক্ষেত্রে সকলকে মানিয়ে চলার মন-মানসিকতা থাকতে হবে। নাক-সিটকানো স্বভাবের লোক এই ট্যুর থেকে দূরে থাকুন। আমরা চাই সবার সহযোগীতায় সুন্দর একটি ট্যুর করতে।

বৃত্ত-Britto Travel & Tourism
Corporate Office : Concord Tower (2nd Floor, Suite-202), 113 Kazi Nazrul Islam Avenue Banglamotor, Dhaka-1000.
Mobile: +880 1911 722 007, +880 1911 254397.
Email : brittotourism@gmail.com
Website : www.brittotourism.com

Cafe Britto - ক্যাফে বৃত্ত
Office - 2 : House-836, Road-2, (1st floor),
BaitulAman Housing Society, Adabar Dhaka-1207.

Facebook Page :https://www.facebook.com/pg/BrittoTourism
Facebook Group : https://www.facebook.com/groups/BrittoTourism/

প্রয়োজনে যোগাযোগঃ
1. Tawhidul Islam Shawon – 01911 254397,
2. Mehedi Hassan Shuvo - 01685 309156,
3. Masud Rana Moshiur - 01673 892038,
4. Dr. Mazharul Xion - 01911 722007.




পরবর্তী ট্যুরসমূহ