লাংলোক ও নাফাখুম ভ্রমণে বৃত্ত

লাংলোক ও নাফাখুম ভ্রমনে বৃত্ত.....
এটি বৃত্ত-Britto Travel & Tourism এর একটি ট্রেকিং ইভেন্ট।

বান্দরবান যদি বাংলাদেশের ভূ-স্বর্গ হয়ে থাকে তবে “তিন্দু” হল সেই ভূ-স্বর্গের রাজধানী! তিন্দুর পরের জায়গাই হলো রাজা পাথর এলাকা। স্থানীয় বাসিন্দাদের নিকট পূজনীয় ভয়ংকর পাথরের এই রাজ্য। তারপর রেমাক্রি। এই রেমাক্রি থেকেই খাল ধরে ২ ঘন্টা হেঁটে গেলে দেখা মিলবে অনন্য সুন্দরী “নাফাখুম”!

লাংলোক বা লিলুক ঝর্ণার উচ্চতা ৩৮৮.৯ ফুট। চারিদিক ঘন জঙ্গলে ঘেরা উচুঁ নিচু আঁকা বাঁকা পথ ও বিল্ডিং সমান পিচ্ছল পাথর পেরিয়ে লাংলোক বা লিলুক ঝর্ণার দর্শনে আপনিও মুগ্ধ হয়ে ভুলে যাবেন দূর্গম পথের সব ক্লান্তি।

প্ল্যানঃ
১লা অক্টোবর - বৃহস্পতিবারঃ #রাতের নন-এসি বাসে ঢাকা ত্যাগ।

২রা অক্টোবর - শুক্রবারঃ
#সকালে বান্দরবান পৌছে রিজার্ভ জীপে করে থানচিতে রওয়ানা।
#থানচি পৌছে নাস্তা সেরে বিজিবি’র অনুমতি নিয়ে রিজার্ভ নৌকা যোগে যাব তিন্দু। সেখান থেকে ১ ঘন্টার মত ট্রেক করে যাব লাংলোক দেখতে। তারপর সেখান থেকে ফিরে রিজার্ভ নৌকা যোগে রেমাক্রির উদ্দেশ্যে যাত্রা।
#রেমাক্রিতে রাতে থাকবো আমরা কোনো পাহাড়ি কটেজে।

৩রা অক্টোবর – শনিবারঃ
#পাহাড়ের ভোর বেলা নাস্তা করে আমরা যাত্রা শুরু করবো নাফাখুমের উদ্দেশ্যে। ঘন্টা ২ সময় লাগবে ট্রেক করে যেতে। নাফাখুম দেখে কিছু সময় কাটিয়ে রেমাক্রির উদ্দেশ্যে ফিরতি যাত্রা। দুপুরের লাঞ্চ করবো রেমাক্রিতে।
#রেমাক্রি থেকে বোট যোগে “তিন্দু” হয়ে থানচি পৌঁছানো।
#থানচিত থেকে বান্দরবানের উদ্দেশ্যে যাত্রা। বান্দরবান রাতের খাবার খেয়ে বাসে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা।

৪ঠা অক্টোবর - রবিবারঃ #ভোরে ঢাকায় পৌঁছাবো ইনশাআল্লাহ।

খরচঃ ৫,৭০০/- টাকা।
পরিবহনঃ বাস, জীপ, নৌকা।

# যা যা পাচ্ছেনঃ
১) ঢাকা - বান্দরবান বাসের টিকিট (যাওয়া-আসা নন এসি),
২) রিজার্ভ জীপে (চান্দের গাড়ি) থানচি যাওয়া-আসা,
৩) ২ দিনের ৬ বেলা খাবার (যাত্রা বা ফিরতি পথে হাইওয়ে রেস্টুরেন্ট ব্রেক টাইমের কোনো খাবার ইভেন্টে ইনক্লুড নয়),
৪) গাইডের খরচ,
৫) দুই দিন রিজার্ভ বোট,
৬) রেমাক্রিতে রাতে পাহাড়ি কটেজে থাকার খরচ।

# যা যা পাচ্ছেন নাঃ
- কোন ব্যক্তিগত খরচ
- কোন ঔষধ
- কোন ধরণের বীমা

# কনফার্ম করার শেষ সময়ঃ ২৫ শে সেপ্টেম্বর (আসন ফাঁকা থাকা সাপেক্ষে)

# টাকা জমা দেবার নিয়মঃ
৩০৬০ টাকা (খরচ সহ) bKash করতে হবে 01685-309156 নম্বরে। bKash করেই সাথে সাথে ঐ নম্বরে ফোন করে নিজের নাম এবং বিকাশ নাম্বার জানাবার পরেই আপনার আসন কনফার্ম হবে। যেকোন অনাকংক্ষিত ভুল বোঝাবুঝি এড়ানোর জন্যেই এটা জরুরী। অথবা সামনা-সামনিও দেখা করে টাকা দিতে পারেন। বাসের সীট এডভান্স পেমেন্ট কনফার্মেশনের ভিত্তিতে বন্টন করা হবে।

# কিছু কথাঃ
১। পাহাড়ি অসাধারন ১টা ট্রেকিং ট্রেইল, Trekking অভিজ্ঞ্যতা থাকতেই হবে এমন কোন কথা নেই তবে প্রচন্ড শক্ত মন-মানসিকতা সম্পন্ন হতে হবে। যেকোন অনাকাঙ্ক্ষিত প্রাকৃতিক পরিস্থিতির মুখোমুখি হতেই পারেন।
২। কোন অবস্থাতেই গাইড, টীম লিডারের অনুমতি বা নির্দেশনা অমান্য করা যাবে না।
৩। কোন প্রকারের মাদক দ্রব্য সঙ্গে বহন করা নিষেধ।
৪। মশা থেকে বাঁচার জন্য Odomos cream নিবেন সাথে।
৫। গ্রুপ লিডারের বিভিন্ন নির্দেশনা সঠিক ভাবে মেনে চলতে হবে সবার।
৬। ২+২=৪ ঘন্টা হাঁটতে হবে, তেমন কোন কষ্টকর ট্রেকিং নয়। তারপরেও যেকোন দূর্যোগ পরিস্থিতি, সমস্যা টীম হিসেবে সমাধান করার ভ্রমন মানসিকতা থাকতে হবে। বেশ কিছু জায়গায় দড়ি ধরে খাল পাড়ি দিতে হতে পারে।
৭। সোজা কথা যেহেতু পাহাড়ি পথে ট্রেকিং ইভেন্ট এটা, সুতরাং অনাকাঙ্ক্ষিত যেকোন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতেই পারি আমরা। তাই, মন-মানসিকতা বন্ধুত্বপূর্ন হতে হবে আমাদের সকলের।

Cafe Britto - ক্যাফে বৃত্ত
House-836, Road-2, (1st floor),
Baitul Aman Housing Society, Adabar Dhaka-1207.
Email : brittotourism@gmail.com
Website : www.brittotourism.com

Facebook Page : https://www.facebook.com/pg/BrittoTourism
Facebook Group : https://www.facebook.com/groups/BrittoTourism/

প্রয়োজনে যোগাযোগঃ
1. Mehedi Hassan Shuvo - 01685-309156,
2. Dr. Mazharul Xion - 01911 722007,
3. Tawhidul Islam Shawon – 01911 254397,
4. Masud Rana Moshiur - 01673 892038.




পরবর্তী ট্যুরসমূহ